বছর তিনেক আগে হটাৎ মাথায় আসলো আমি যখন বুড়ো হবো তখন আমার অবলম্বন কী হবে ? আমি তখন কী করবো ? আবার এর মাঝে আমি ভাবতে খুব পছন্দ করি আর ভালোবাসি আমার ভাবনাগুলো অন্যকে বলতে।এমন সময় মাথায় আসলো বই লিখলে কেমন হয় ? ভাবনাগুলো একসঙ্গে অনেক মানুষকে বলবো আর শেষকালে এই বইগুলো অবলম্বন হিসেবে কাজ করবে। ভাবনাগুলোকে নিয়ে আমি ভাববো হয়তো কোনো এক বারান্দার কোণে বসে বসে। সময় আমার একাকিত্বে ভরে উঠবে না। আমি কখনো একা হবো না।আর এই ভাবনা থেকেই লেখালেখিতে পাঁ দেয়া।আমার বইগুলো পড়ে আপনি কিভাবে উপকৃত হবেন সেটা বই পড়লেই বুঝে নিবেন তবুও বলে রাখি ; আমিআশপাশের চলমান জীবন নিয়ে লিখি।প্রথম বই পাবলিশ হয় ২০১৫ সালে। ভালোই সাড়া পেলাম।প্রথম বইয়ের প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল কিভাবে তরুণরা জীবনের বড় বড় সিদ্ধান্ত নিবে এবং বিপদে কেমন করে নিজেকে টিকিয়ে রাখবে ।বইটি আমি যখন আমেরিকা আসলাম তার পর পরই লিখলাম।আমেরিকা আসা তিন তরুনের জীবনের উপর ভিত্তি করে লিখা।পড়াশুনার চাপে পরের বছর লিখার কাজটা বন্ধ থাকে।এক বছর পরে আবার দ্বিতীয় বই “সফল হবেন আপনিও” অমর একুশে বই মেলায় আনছে সপ্তবর্ণ।বইটি সংগ্রহ করতে করইতলা লিটলম্যাগ চত্ত্বরে খোঁজ করুন। এই বইটি আপনাকে মোটিভেট করবে এবং আপনি জীবনের মানে খুঁজে পাবেন যদি আপনি পথ হারা হন। বাংলাদেশের তরুণরা দেশে-বিদেশে নিজেদের নিয়ে গেছে অনন্য উচ্চায় আর সেটা কেমন করে এবং এই সফলতার পেছনে কী কাজ করেছে সেটাই ব্যাখ্যা করেছি। আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে।আমি আসলে সাহিত্য ধাঁচের বই লিখিনি।আমার বইগুলো মোটিভেশনাল এবং দৈনন্দিন জীবনের সাথে ওতপ্রোতভাবে সম্পৃক্ত। আপনি আমাকে ইউটুবে পাবেন।আমার নাম সার্চ করলেই পেয়ে যাবেন। আমি আপনাদের জন্য ভিডিও তৈরী করে রেখেছি।জীবন সুন্দর হোক। হিজবুর রহমান জীবন কম্পিউটার প্রোগ্রামার ও মোটিভেশনাল রাইটার।

PDF FILE

Advertisements