Hizbur Rahman Jibon

-Motivational Speaker & Writer.

About

This is Jibon. My mother’s name is laily begum ,father’s name is Muhibur Rahman.I am their first issue.I have one brother named Saimon and one sister named Jannatul Jony .I love my family very much. However,I passed SSC in 2009 & HSC in 2011.Now I am about to complete my associate degree from ASA college in programming.

#A Web Developer (Design and make stunning websites for business and personnel )

#আমার সম্পর্কে বলার মত তেমন কিছুই নেই। খুব মনেপ্রাণে একটা জিনিসই লালন করি;আমি যেন কারো ক্ষতির কারণ না হই।

#অন্ধকার আমি ভয় পাই না,আলোর পৃথিবীর বেশির ভাগই বাসিন্দা অন্ধকারে ছিল।
#শিকড় ধরে রেখে বদলে যাওযার পক্ষে আমি।
#ভালবাসা,শ্রদ্ধা আর সততায় জীবন ও সম্পর্ক এক বিশেষ গতিময়তা পায় বলে বিশ্বাস করি।
#আর বিশ্বাস করি……অনেক কিছুই।……………….
#Favorite song:
এমন মানব জনম আর কি হবে।মন যা কর ত্বরায় কর এই ভবে।।

I write and that is how I burn myself…..
A short Story about me …

গ্রামে বড় হয়েছে। খুব কাছ থেকে গ্রামের খেটে খাওয়া মানুষকে দেখেছি। ওদের জন্য কিছু একটা করবো ইচ্ছে সেই ছোট বেলা থেকে।গ্রামের কৃষকের ছেলেমেয়েরা পড়াশুনা করবে,যার সামর্থ হবে না থাকে আমি ফ্রী পড়াবো। গ্রামের কৃষকের ছেলেমেয়ে একদিন বিশ্ব জয় করবে। এদের বিশ্ব জয়ের পেছনে আমি থাকবো ভাবতেই  ভালো লাগে  । এই স্বপ্বটাই আমার রক্তে মিশে গেছে। স্বপ আমার আব্বু আম্মুর নামে একটা কলেজ করার,করবোই ইনশা আল্লাহ।
আমি ২০০৯ SSC এ সফলতার সাথে এ প্লাস পেয়েছি। ইন্টারমিডিয়েটে ও এ প্লাস পেয়েছি ।আমার আম্মুর অনুপ্রেরণা আর আমার স্বপ আমাকে এখানে নিয়ে আসছে। ইন্টার এর পর আমি মেডিক্যাল এর জন্য চেষ্টা করি (যদিও আমার ইন্টারেস্ট ছিল না মেডিক্যাল এ পড়বো ) ।আমি স্বপ দেখতাম ক্রিয়েটিভ কিছু করবো ,আমি স্বপ্ন দেখি নতুন কিছু করার যা আমাকে একটা বিশেষ পরিচয় এনে দিবে। পর পর দু দু বার মেডিক্যাল এ চান্স না পেয়ে খুব ভেঙে পরি। মেডিক্যাল এর রেজাল্ট এ আমার স্থান ৪০০০ এর কাছাকাছি ছিল । প্রাইভেট মেডিক্যাল কলজে চাইলে ভর্তি হতে পারতাম ,হয়নি কারণ আমি চাই নি এতো টাকার ভার পরিবারের উপর ফেলতে। দেশ ছেড়ে চলে আসবো ভাবলাম।মাত্র ২১ দিন পরে প্র্যাক্টিস করে IELTS টেস্ট দিলাম , ভালো রেজাল্ট আসলো । আরো কয়েকদিনের মাঝে সব কিছু রেডি করে চলে আসলাম আমেরিকায়। ওয়াসিংটনের একটা কলজে এডমিট নিয়ে আসলাম। এক সিমেস্টার শেষ করে চলে আসি নিউ ইয়র্ক এ কারণ ঐজায়গায় কোনো বাংলাদেশি নাই আর পার্ট টাইম জব ও পাওয়া যায় না। অনেক কষ্টে চার মাস থেকেছি। এক বছরের এর বেশি সময় কলেজ যেতে পারি নাই কারণ ওয়াসিংটনের সেই কলেজ আমাকে ট্রান্সফার দেয় নি । এর মধ্যে আবার হাতে টাকা ও ছিল না। অনেক কষ্টে আবার কলেজে শুরু করলাম ২০১৫ এ। আগামী জানুয়ারিতে(২০১৭) আমার এসোসিয়েট ডিগ্রি শেষ হবে। স্বপ আমার ভালো একজন সফ্টওয়ার ইঞ্জিনিয়ার হবার। ইতিমধ্যে আমি ওয়েব এর কাজ করি প্রফেশনালি তবে এখানেই থামবো না। সফ্টওয়ার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে দাড় করবোই।বর্তমানে আমি western union এ computer operator হিসেবে কর্মরত (গত তিন বছর ধরে) । বই পড়তে ভালোবাসি। বই লিখি ও একবারে শখের তাগিদে। আমার বই এর ফোকাস মোটিভেশনাল। যেমন অন্ধকার দূর হয় আলোর আগমনে টিক তেমনি ভেঙে পড়া যুবক যুবতীর অনেক অনুপ্রেরণার দরকার সামনে যাওয়ার জন্য।২০১৫ এ আমার বই তারুণ্য : স্বপ্ন ও বাস্তবতা  হয় একুশে বই মেলা থেকে। ২০১৭ এ ” আপনিও সফল হবেন  ” অমর একুশে বই মেলায় আনছে সপ্তবর্ণ।বইটি সংগ্রহ করতে করইতলা লিটলম্যাগ চত্ত্বরে খোঁজ করুন। এই বইটি আপনাকে মোটিভেট করবে এবং আপনি জীবনের মানে খুঁজে পাবেন যদি আপনি পথ হারা হন।

Search both of them on rokomari.com

Advertisements